Saturday, May 15, 2021
Home রাজ্য পুরুলিয়া-বীরভূম-বাঁকুড়া হেরে যাওয়ার ভয়,মুখ্যমন্ত্রী কোথায় দাঁড়াবেন নিজেই জানেন না,কটাক্ষ বিজেপির।

হেরে যাওয়ার ভয়,মুখ্যমন্ত্রী কোথায় দাঁড়াবেন নিজেই জানেন না,কটাক্ষ বিজেপির।

মুখ্যমন্ত্রী কোথায় জিতবেন উনি নিজেও জানেন না বাকুড়ায় চায় পে চর্চায় যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ রাজ্য বিজেপির BJMTU এর সভাপতি বাবান ঘোষ ।

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃকিছুদিন আগেই নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে একইসঙ্গে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দুটি কেন্দ্রে ভোটে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছিলেন।সে প্রসঙ্গেই সোমবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে রাজ্য বিজেপির BJMTU এর সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কিষান মোর্চার এক্সিকিউটিভ মেম্বার বাবান ঘোষ চায় পে চর্চায় যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বলেন,” মুখ্যমন্ত্রী দুটো কেন্দ্রে কেন সংবিধানে যদি নিয়ম থাকে উনি 294 টা কেন্দ্রে দাঁড়াক, কারণ উনি নিজেই জানে না কোথা থেকে উনি জিতবেন”।

শুভেন্দু অধিকারীর প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন,”শুভেন্দু অধিকারী যদি কোন ফ্যাক্টর না হন, উনি যদি মীরজাফর হন তাহলে শুভেন্দু অধিকারীর নন্দীগ্রামে দাঁড়ানোর কি আছে! তাহলে উনি ভবানীপুরে দাঁড়াতে পারেন। কেননা ভবানীপুরে 2019 লোকসভা নির্বাচনে মাত্র বত্রিশশো থেকে তেত্রিশশো ভোটে জিতেছে ওখানকার মানুষ উনাকে এখন আর চায় না”।

সোমবার সকালে বাঁকুড়া জেলার পাত্রসায়রে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে তিনি চায় পে চর্চায় যোগ দেন এবং দাসপুর গ্রামে দুর্গা মন্দিরে পুজো দেন । পরে মঞ্চে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে দলীয় কর্মসূচির শুভ সুচনা করেন তিনি ।

সোমবারের এই কর্মসূচিতে কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উচ্ছ্বাস উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো । আজকের এই কর্মসূচিতে বাবান ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিল রাজ্য BJMTU এর সম্পাদক গৌতম দাস কর্মকার, বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা BJMTU এর সভাপতি গোবিন্দ ঘোষ , বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলার BJMTU এর সভাপতি স্বপন কুমার ঘোষ সহ একাধিক বিজেপি নেতৃত্ব।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?