Thursday, March 4, 2021
Home রাজ্য সিঙ্গুর আন্দোলন আমার রাজনৈতিক জীবনের বড় ভুল।'

সিঙ্গুর আন্দোলন আমার রাজনৈতিক জীবনের বড় ভুল।’

'অ্যাগ্রো ইন্ড্রাস্ট্রি কি আসলে তা মানুষ বোঝেই না।

শুবুদ্ধি সঠিক সময়ে হয় না। এতদিনে বুঝতে পারলেন, ওই জমিতে চাষ হবে না।’ সিঙ্গুরে শিল্প নিয়ে এমনই প্রতিক্রিয়া দিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় । মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে এদিন মুকুল রায় বলেন , ‘অ্যাগ্রো ইন্ড্রাস্ট্রি কি আসলে তা মানুষ বোঝেই না। ইন্ড্রাস্ট্রি শব্দটা জুড়ে দিলে মানুষকে খুব সহজেই বিভ্রান্ত করা যায়। বিজেপি এসে ভাববে ভাববে, ওই জমিতে কী হবে!তৃনমুল এর কাছে আর ওসব করার সময় কই।’
সিঙ্গুর ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এদিন কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন আর এক বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্তও ।বামফ্রন্টের সময়ে উনি এ পশ্চিমবঙ্গে শিল্প করতে দেয়নি,টাটাদের নিজের কুবুদ্ধিতে তাড়িয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর সেই নিজেই সিঙ্গুরে শিল্প স্থাপন করতে চাইছেন। তাও আবার বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে! সিঙ্গুর আন্দোলনের সময়ে তৃণমূলের একদম প্রথমসারিতে ছিলেন সব্যসাচী , দলবদলে এখন বিজেপিতে।

সিঙ্গুরে প্রস্তাবিত অ্যাগো ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল পার্ক নিয়ে মুকুল রায়ের সোজাসাপ্টা বক্তব্য ‘আমি তিন বছর আগেই বলেছিলাম, সিঙ্গুর আন্দোলন আমার রাজনৈতিক জীবনের বড় ভুল। তখন যদি টাটাকে তৃণমূল না তাড়াত, তাহলে বাংলা নির্জলা থাকত না। বেকার যুবক-যুবতীর চাকরির পেতে কোনও সমস্যা হত না।’ একসঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘মানুষ ‘অ্যাগ্রো ইন্ড্রাস্ট্রি কি সেটা বোঝেই না। ইন্ড্রাস্ট্রি শব্দটা জুড়ে দিলে মানুষকে বিভ্রান্ত করাটা সহজ হয়।’  মুকুলের দাবি, আগামীদিনে বাংলার নতুন সরকার আসছে, সেই সরকারই ঠিক করবে ওই জমিতে কী হবে।’ সিঙ্গুর পর্বে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছিলেন বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। এখন অবশ্য দলবদলে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তিনিও।  হুগলিতে এক জনসভা সব্যসাচী বলেন, ‘সিঙ্গুরে চপশিল্প ছাড়া আর কিছুই হবে না। কারণ, মুখ্যমন্ত্রী তো বলেই দিয়েছেন, বেকারদের চিন্তা কীসের! চপ শিল্প করো।’

উল্লেখ্য, বাম আমলে এই সিঙ্গুরে একলাখি গাড়ি ন্যানো তৈরির কারখানা করতে চেয়েছিল টাটারা। কিন্তু কৃষি জমি অধিগ্রহণ করে শিল্পের বিরোধিতা করেছিলেন তৎকালীন বিরোধী দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রবলে আন্দোলনে মুখে শেষপর্যন্ত কারখানাটি সরিয়ে নেওয়া যাওয়া হয় গুজরাটে। ২০১১ সালে পালাবদলের পর সুপ্রিম কোর্টে নির্দেশে জমি ফেরত পান ‘অনিচ্ছুক’ কৃষকরা।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?