Wednesday, February 24, 2021
Home রাজ্য শাহি আপ্যায়নে আপ্লুত অমিত,গান শুনে তালে তাল ও মেলালেন চেয়ারে বসে।

শাহি আপ্যায়নে আপ্লুত অমিত,গান শুনে তালে তাল ও মেলালেন চেয়ারে বসে।

‘ তোমায় হৃদমাঝারে রাখব/ছেড়ে দেব না’, একতারার সুরে আর গানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কে বরণ করে নিলেন বাউল শিল্পী বাসুদেব দাস বাউল ও তার পরিবার।

‘ তোমায় হৃদমাঝারে রাখব/ছেড়ে দেব না’, একতারার সুরে আর গানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কে বরণ করে নিলেন বাউল শিল্পী বাসুদেব দাস বাউল ও তার পরিবার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চেয়ারে বসে হাতে তাল দিয়ে সেই বাউল সংগীত আস্বাদন করলেন। তার আগে বাউল পরিবারের পারিবারিক শিব মন্দিরে গিয়ে পূজা-অর্চনা করেন,সঙ্গে ছিলেন বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা,ছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিজেপি সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়, কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। এরপর মধ্যাহ্নভোজে তাঁদের পাত সাজিয়ে দেওয়া হল সপ্তপদে।
ইচ্ছাছিল, বোলপুর গেলে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একেবারে স্থানীয় খাবার খাবেন বাউল পরিবারে। সেইমতো রবিবার অতিথি আপ্যায়ণের জন্য সকাল থেকেই তোড়জোড় শুরু হয় রতনপল্লির স্যাম বাটি তে বাউল বাসুদেব দাসের পরিবারে। বাসুদেব জানিয়েছেন যে অমিত শাহর আগমনের খবর শুনে তিনি এতটাই খুশি যে নিজেই নেমে পড়েছেন রান্নার কাজে। তিনি নিজে বানিয়েছেন পায়েস, যা নিজেই তিনি পরিবেশ করে খাওয়াতে চান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। এছাড়া রান্নার হয়েছে নানারকমের ভাজা, তরকারি। বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে আলুপোস্ত তৈরিতে। কারণ, অমিত শাহ চেয়েছিলেন, বীরভূমে বিশেষভাবে তৈরি আলুপোস্তের স্বাদ পেতে। এছাড়া বাংলার বিখ্যাত নলেন গুড়ের রসগোল্লাও । সবই হয় কড়া নজরদারিতে। মাটিতে আসন পেতে বসে খাওয়ার আয়োজন। মাটির থালার উপর কলাপাতায় সাজানো – ভাত, মুগডাল, আলু-পটল-বেগুন ভাজা, আলুপোস্ত, পালংশাক, টক দই, নলেন গুড়ের রসগোল্লা, পায়েস। খাঁটি বাংলার এসব পদের স্বাদ দারুণ উপভোগ করলেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আর অতিথিসেবা করে উচ্ছ্বসিত বাউল পরিবার। এরপরই তিনি স্থানীয় হনুমান মন্দিরে পুজো দিয়ে ডাকবাংলো মোড় থেকে রোড শো শুরু করেন হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?