Monday, May 17, 2021
Home কলকাতা রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা, অভিনন্দন জানালেন মোদি।

রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা, অভিনন্দন জানালেন মোদি।

শপথ নিলেন মমতা।

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ভোট পেয়ে ফের রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। নির্বাচনের ফল ঘোষণা হওয়ার পরই দলের পক্ষ থেকে জানানো হয় বুধবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আগের দু’বারের মতো জনসমুদ্রে ভেসে শপথ নিলেন না তিনি। এবারে পরিস্থিতি একবারেই আলাদা অন্যান্য বারের থেকে।

দেশ তথা রাজ্যে কোভিড আক্রান্তের গ্রাফ লাগাতার উর্ধ্বমুখী। কাজেই লোকসমাগম না করে রাজভবনে খুব কম সংখ্যক লোক নিয়ে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করার সিদ্ধান্ত নেন মমতা। পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী পৌনে এগারোটা নাগাদ রাজভবনে আসেন তিনি। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকারের স্ত্রীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এরপর সোজা মঞ্চে উঠেন।

রাজ্যপালের উপস্থিতিতে তৃতীয়বারের মতো মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথবাক্য পাঠ করেন মমতা। তাঁর শপথ নেওয়ার কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘ছোট বোন’ বলে সম্বোধন করেন রাজ্যপাল ধনকার। শপথ নেওয়ার পরই মমতা বলেন, সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। মা-মাটি-মানুষকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন “আমাদের প্রথম কাজ রাজ্যের করোনা পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণ করা।” দুপুর ১২টায় নবান্নে এই বিষয় নিয়ে একটি বৈঠকও রয়েছে। তবে এরপর মধ্যেই রাজ্যপাল পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন তোলেন সেখানে। শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে এই ধরণের প্রসঙ্গ তোলায় স্বাভাবিক ভাবেই বেশ খানিকটা মনক্ষুন্ন হন মুখ্যমন্ত্রী। জবাবে তিনি বলেন, গত তিনমাস রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখার দায়িত্ব ছিল নির্বাচন কমিশনের।

তবে আজ শপথ গ্রহণের পরই সমস্ত দায়িত্ব নিজের হাতে তুলে নিলেন মমতা। কড়া হাতে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার আশ্বাস দেন তিনি। জানান, “আজই আমি নতুন পরিকাঠামো তৈরি করব। গত তিনমাস পরিকাঠামো আমার ছিল না।” পাশাপাশি তিনি আরো বলেন, “সবাই শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখুন। কোথাও যেন কোনও হিংসা না হয়।” কড়া পদক্ষেপ নিতে পিছপা হব না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

এদিনের অনুষ্ঠান শেষে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “কোভিড প্রোটোকল মেনে যেটুকু করা সম্ভব সেটুকুই করা হয়েছে। আজকের অনুষ্ঠানে হাতেগোনা কয়েকজনকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে জয়ের অনুষ্ঠান হবে নিশ্চয়ই।” সেখানে অনেককেই আমন্ত্রণ জানানো হবে বলেও এদিন জানিয়ে দেন তিনি।

১০ মিনিটের এই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শেষ করেই নবান্নে চলে যান তিনি। সেখানে “গার্ড অব অনার” দেওয়া হয় তাঁকে। জানা গিয়েছে, নবান্নে আজ দুটি বৈঠক হবে। একটি বৈঠকে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা নিয়ে আলোচনা হবে। অন্যটিতে আলোচনা হবে নতুন মন্ত্রিসভা গঠন নিয়ে।

আজ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ট্যুইটের মাধ্যমে তিনি জানান, “পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার জন্য মমতা দিদিকে অভিনন্দন।”

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?