Thursday, June 17, 2021
Home রাজ্য পুরুলিয়া-বীরভূম-বাঁকুড়া বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে এলাকার সমস্যা ক্ষতিয়ে দেখলেন সোনামুখী বিধানসভার বিধায়ক।

বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে এলাকার সমস্যা ক্ষতিয়ে দেখলেন সোনামুখী বিধানসভার বিধায়ক।

সোনামুখী বিধানসভার বিভিন্ন প্রান্ত পরিদর্শন করছেন সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি বিধায়ক দিবাকর ঘরামী।

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়াঃ প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করার পর থেকে সোনামুখী বিধানসভার বিভিন্ন প্রান্ত পরিদর্শন করছেন সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি বিধায়ক দিবাকর ঘরামী। সে মতই মঙ্গলবার সোনামুখী ব্লকের রাধামোহন পুর পঞ্চায়েতের নিত্যানন্দপুর ও বেলোয়া বুথে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখলেন তিনি পাশাপাশি কথা বললেন এলাকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে।

এছাড়াও বেলোয়া বুথে তাপস মন্ডল নামে এক ব্যক্তির সাড়ে চার বছরের ছেলে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত এদিন তার বাড়িতে পৌঁছে যান দিবাকর ঘরামী। কথা বলেন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে এবং তার চিকিৎসা সুবন্দোবস্ত করেন ও আগামী দিনে তাদের পাশে থাকার বার্তা দেন। বিধায়কের সহযোগিতা পেয়ে খুশি তাপস মন্ডল ও তার পরিবারের সদস্যরা।

এলাকার সাধারণ মানুষরাও বিধায়ককে পাশে পেয়ে দারুণ খুশি। নিত্যানন্দপুর গ্রামের পরান মন্ডল রতন মল্লিক নামের গ্রামবাসীরা বলেন, বিধায়ক এসে আমাদের গ্রামের রাস্তাঘাট আমাদের ঘরবাড়ি পরিদর্শন করলেন। পাশাপাশি দামোদর নদীর ভাঙ্গন রধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে তিনি প্রতিশ্রুতি দিলেন।

বিধায়ককে পাশে পেয়ে আমরা খুশি। এ বিষয়ে সোনামুখী বিধানসভার বিজেপি বিধায়ক দিবাকর ঘরামী আমাদের ক্যামেরার মুখোমুখি হয়ে জানান, এলাকায় বিভিন্ন রকম সমস্যা রয়েছে কোথাও রাস্তাঘাট কোথাও ছোট ব্রিজ। আমরা মানুষের সঙ্গে কথা বললাম এবং আগামী দিনে আমার সাধ্যমত তাদের সেই সমস্যাগুলো সমাধান করার চেষ্টা করব।

এছাড়াও রাজ্য সরকারকে আক্রমণ সানিয়ে তিনি বলেন, রাজ্য সরকার বলছে ১০০% কাজ হয়ে গেছে হয়তো ওনাদের খাতায়-কলমে ১০০% কাজ হয়েছে কিন্তু বাস্তবে ছবিটা অন্যরকম। তবে এ বিষয়ে বিজেপির বিধায়ক দিবাকর ঘরামীর এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করেছেন সোনামুখী ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রণব রায়।

আমাদের ক্যামেরার মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে এলাকায় যথেষ্ট উন্নয়ন হয়েছে। এমএলএ যে রাস্তা দিয়ে এসেছেন সেটাও রাজ্য সরকারের তরফে তৈরী হয়েছে তবে উনি উনার কাজ করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী দিনেও এলাকার উন্নয়ন করবেন।

তবে গ্রামবাসীদের একটাই দাবি গ্রামের রাস্তাঘাট সহ অন্যান্য যে সমস্যর রয়েছে সেগুলির দ্রুত সমাধান হোক। এখন দেখার বিষয় বিধায়কের এই এলাকা পরিদর্শন আগামী দিনে বাস্তবের মাটিতে কতটা সফলতা অর্জন করে সেই আশাতেই দিন গুনছেন সাধারণ মানুষরা।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?