Thursday, March 4, 2021
Home রাজ্য বিতাড়িত তৃণমুল নেতাকে দলে নিয়ে ফাঁপরে বিজেপি,বহিঃস্কারের দাবিতে উত্তাল জঙ্গলমহল

বিতাড়িত তৃণমুল নেতাকে দলে নিয়ে ফাঁপরে বিজেপি,বহিঃস্কারের দাবিতে উত্তাল জঙ্গলমহল

নরেশ ভকত ,বাঁকুড়াঃ সদ্য যোগ দেওয়া বিজেপি নেতাকে বহিঃস্কারের দাবীতে পথে নেমে বিক্ষোভ দেখালেন বিজেপি কর্মীরা, আর এই ঘটনায় উত্তাল জঙ্গল মহল। রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন জঙ্গল মহলের প্রতিবাদী বিজেপি কর্মীরা। তাঁদের দাবী, একটাই দাবী অবিলম্বে বহিষ্কার করতে হবে সদ্য বিজেপিতে যোগদেওয়া নেতা বিদ্যুৎ দাসকে।

উল্লেখ্য, রানিবাঁধ বিধানসভার রানিবাঁধ ব্লকের তৃণমূলের দাপুটে নেতা ছিলেন বিদ্যুৎ দাস। কিছু দিন আগেই দল বিরোধী কাজের অভিযোগে তাকে বহিষ্কার করেছে তৃণমূল।

তৃণমুল থেকে বহিঃষ্কার করার পর বিদ্যুৎ বাবু সম্প্রতি মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেন।বিদ্যুৎ দাস বিজেপিতে যোগদান করার পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে বাঁকুড়ার রানিবাঁধ এলাকার বিজেপি কর্মীরা।

বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ,’শেষ পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৎকালীন তৃণমূল নেতা বিদ্যুৎ দাসের নেতৃত্বে হামলা হয় বিজেপি কর্মীদের উপর। পঞ্চায়েত ভোটের জন্য মনোনয়ন পত্র তুলতে গিয়ে প্রাণ হারান এলাকার বিজেপি নেতা অজিত মূর্ম্মূ। হামলার ঘটনার বিজেপি কর্মীরা অভিযোগের আঙ্গুল তোলেন তৎকালীন তৃণমূল নেতা ও সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া বিদ্যুৎ দাসের দিকে’।

রানিবাঁধের বিজেপির বিক্ষোভ মিছিলে এদিন সামিল হন প্রয়াত অজিত মূর্ম্মূর স্ত্রী উর্মিলা মূর্ম্মূ।তিনি সংবাদ মাধ্যমের সামনে দাবী করেন, ‘যারা আমার স্বামীকে পিটিয়ে খুন করেছে তাকে আমরা মেনে নিতে পারবো না’।

এদিকে এই ঘটনাকে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ বলে দাবী করেছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা।তিনি জানান,’অপরাধকে তৃণমুল সমর্থন করে না,আর অপরাধ করে ও না।তার অপরাধীদের তৃণমুলে কোনো জায়গা নেই।দলবিরোধী কাজের জন্য বিদ্যুৎ দাসকে অনেক আগেই আমরা দল থেকে বের করে দিয়েছি,তাকে নিয়ে বিজেপি সংগঠন বানাচ্ছে,গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তো হবেই’।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?