Monday, May 17, 2021
Home রাজ্য পুরুলিয়া-বীরভূম-বাঁকুড়া প্রার্থীপদ না পেয়ে দল ছাড়লেন মইনুদ্দিন শামস ও নরেশ চন্দ্র বাউড়ি।

প্রার্থীপদ না পেয়ে দল ছাড়লেন মইনুদ্দিন শামস ও নরেশ চন্দ্র বাউড়ি।

আগামী শুক্রবার তিনি পদত্যাগপত্র পেশ করবেন বলে জানা গিয়েছে। নরেশ চন্দ্র বাউড়ি বলেন," দুবরাজপুরের আমাদের ঘোষিত প্রার্থীকে বদল হতে পারে। যদি প্রার্থী হয় ঠিক আছে না হলে আমি রাজনৈতিক সন্ন্যাস নেবো

কৌশিক সালুই ,বীরভূম :-দল ছাড়ার পর পাথরচাপরি উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ পত্র জমা দিলেন মইনুদ্দিন শামস। অন্যদিকে বক্রেশ্বর উন্নয়ন পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য বিভিন্ন পদ থেকে অব্যাহতি নিতে চলেছেন বলে জানালেন নরেশ চন্দ্র বাউড়ি।

নলহাটি বিধানসভায় ও দুবরাজপুরে বর্তমান বিধায়ক মইনুদ্দিন শামস এবং নরেশচন্দ্র বাউরী কে শাসকদল তৃণমূল এবার বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী পদ দেয়নি। মইনুদ্দিন ইতি মধ্যেই দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করে নলহাটি থেকে লড়াই করার কথা ঘোষণা করেছেন যদিও নরেশ বাউরি সে পথে হাঁটেনি। বুধবার জেলাশাসকের কার্যালয়ে এসে পাথরচাপুরি উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ পত্র জমা করলেন মইনুদ্দিন।

অন্যদিকে নরেশ বক্রেশ্বর উন্নয়ন পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদ, হেতমপুর কলেজ ,মানশায়ের ও নাগড়াকোন্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্র প্রভৃতির পরিচালন সমিতির পদ থেকে তিনি পদত্যাগ করতে চলেছেন। আগামী শুক্রবার তিনি পদত্যাগপত্র পেশ করবেন বলে জানা গিয়েছে। নরেশ চন্দ্র বাউড়ি বলেন,” দুবরাজপুরের আমাদের ঘোষিত প্রার্থীকে বদল হতে পারে। যদি প্রার্থী হয় ঠিক আছে না হলে আমি রাজনৈতিক সন্ন্যাস নেবো। অন্য কোন রাজনৈতিক দলে কোনভাবেই যাব না।

তৃণমূলের সমর্থক হয়েই আজীবন থেকে যাব। এছাড়া আমি অন্যান্য বিভিন্ন পদ থেকে ইস্তফা দিচ্ছি আগামী শুক্রবার”। অন্যদিকে মইনুদ্দিন শামস বলেন,” আমি আগেই তৃণমূল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছি তাই পাথরচাপরি উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে আজকে ইস্তফা পত্র দিলাম। আমি ফরওয়ার্ড ব্লক এর কাছে প্রার্থী পদের জন্য আবেদন করেছিলাম কিন্তু তারা তাদের প্রার্থী আগে থেকেই ঠিক করে নিয়েছে। বিজেপি কে বাদ দিয়ে অন্য একটি সর্বভারতীয় রাজনীতিক দলের হয়ে লড়াই করার সম্ভাবনা আছে”।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?