Friday, May 14, 2021
Home খেলা পিছিয়ে পরেও সিরিজ জয় টিম ইন্ডিয়ার

পিছিয়ে পরেও সিরিজ জয় টিম ইন্ডিয়ার

ভারতের হয়ে ওপেন করতে আসে দলের দুই স্তম্ভ অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং সহঅধিনায়ক হিটম্যান রোহিত শর্মা।

সোহিনী পোড়েল: সিরিজ নির্নয়ক ম্যাচে ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। ভারতের হয়ে ওপেন করতে আসে দলের দুই স্তম্ভ অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং সহঅধিনায়ক হিটম্যান রোহিত শর্মা। এই পঞ্চম ম্যাচে ভারতের একটাই পরিবর্তন ঘটে ব্যাটসম্যান কে এল রাহুলের জায়গায় বোলার টি নটরাজন।

ম্যাচের প্রথম বল থেকেই দুরন্ত ছন্দে ছিলেন দুই ওপেনার বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মা। এই প্রথবার টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওপেন করতে দেখা গেল কোহলিকে। ম্যাচের প্রথম থেকেই তাঁর ব্যাট জ্বলে উঠে ছিল। এর পাশাপাশি তিনি জোড়া রেকর্ডও গড়লেন। অধিনায়ক হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৪৫ ম্যাচে ১২ টি অর্ধশতরান করে রেকর্ড গড়লেন এবং ৪৫ ম্যাচে ১৫০২ রান করে রানের নিরিখে ১ নম্বরে চলে গেলেন। তিনি এই ম্যাচে ৫২ বলে ৮০ রান করে অপরাজিত ছিলেন। অন্যদিকে হিটম্যান ৩৪ বলে ৬৪ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলেন।

এরপর আবারও সূর্যদয় হয়। তিনি ব্যাট চালাচ্ছেন আর একের পর এক ৪/৬ হচ্ছে। তবে আদিল রশিদের বলে ৩২ রান করে সাজঘরে ফেরেন। হার্দিক পান্ডিয়াও ৩৯ রান করেন। কোহলি এবং হার্দিক পান্ডিয়ার যুগলবন্দিতে এক লড়াকু রানে পৌঁছায় টিম ইন্ডিয়া। ২০ ওভার শেষে ভারতের ফল ২২৪/২।

ইংল্যান্ডের ওপেনার জেসন রয়কে প্রথমেই বোল্ট করে সাজঘরে ফেরান ভুবনেশ্বর কুমার। যদিও তারপর বোলাররা ব্যর্থ হন মালান ও বাটলারকে রুখতে। তারা একের পর এক বল কখনো সোজা মাঠের বাইরে পাঠাচ্ছে আবার কখনো বাউন্ডারি লাইনে পাঠাচ্ছে। কার্যত তাদের থামাতে নাজেহাল হয়ে যাচ্ছিল ভারতের বোলিং বিভাগ।

এক সময় মনে হচ্ছিল এদের থামাবে কে? তখনই ত্রানার মতো এসে ভুবনেশ্বর কুমার বাটলারকে এবং শার্দুল ঠাকুর মালানকে সাজঘরে ফেরান। এরপর রানের চাপে ব্যাট চালাতে গিয়ে একের পর এক ভারতীয় বোলারদের স্বীকার হয় ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানেরা। ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ডের ফল ১৮৮/৮।

৩৬ রানে এক অসাধারণ টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতল টিম ইন্ডিয়া। ২৩ মার্চ থেকে শুরু হচ্ছে ওডিআই। সেখানে উভয় দলই নতুন কি পরিকল্পনা আনে সেটারই অপেক্ষায় আছে ক্রিকেটপ্রেমীরা।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?