Monday, March 1, 2021
Home আন্তর্জাতিক নিন্দুকদের সপাটে দিয়ে,গাব্বার তরঙ্গ ওড়ালেন ঋষভরা।

নিন্দুকদের সপাটে দিয়ে,গাব্বার তরঙ্গ ওড়ালেন ঋষভরা।

'এটাই আমার জীবনের অন্যতম বড় ঘটনা৷

গাব্বা: তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের লিস্ট নেহাত কম বড়ো ছিল না৷ কিন্তু ব্রিসবেনের এই একটা ইনিংসে টেস্ট দলে আপাতত নিজের জায়গাটা পাকা করে নিলেন ঋষভ পন্থ৷ শুভমন গিল, চেতেশ্বর পুজারাদের ধৈর্য, লড়াইকে কুর্ণিশ জানিয়েও স্বীকার করতে বাধা নেই, ভারতকে স্মরণীয় এই জয় এনে দিল ঋষভের ব্যাটই৷

৮৯ রানের অপরাজিত এই ইনিংস তাঁর সমালোচকদেরও জবাব দিয়ে দিলেন বাঁ হাতি উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান৷ যা হয়তো এখনও পর্যন্ত টেস্ট ক্রিকেটে তাঁর জীবনের সেরা ইনিংস৷ ঋষভের উইনিং স্ট্রোকেই ম্যাচ এবং সিরিজ জয় করল ভারত৷

স্বাভাবিকভাবেই ম্যাচের পর ভারতীয় দল যখন মাঠ প্রদক্ষিণ করছে, তখন সবার প্রথমে ঋষভ পন্থের হাতেই ছিল জাতীয় পতাকা৷ দলের মধ্যমণি ছিলেন তিনি৷ দিনের শুরুতে হয়তো ম্যাচ ড্র করাই ছিল ভারতের প্রাথমিক লক্ষ্য৷ কিন্তু ভারত যে জিততে পারে, সেই আশা জিইয়ে রেখেছিলেন ঋষভ৷ শেষ পর্যন্ত ভারতীয় দল এবং সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করলেন তিনি৷

পন্থের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, টেস্ট ম্যাচেও টি টোয়েন্টি মেজাজে ব্যাট করতে গিয়ে দলকে ডোবান৷ আজ কিন্তু পরিণত পন্থকে দেখল গাব্বার বাইশ গজ৷ মারার বল পেলে মেরেছেন, নাহলে ধৈর্য ধরে উইকেটে পড়ে থেকেছেন৷ খুব একটা সুযোগ দিয়েছেন, এমন অভিযোগও করা যাবে না৷ শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ময়াঙ্ক আগরওয়াল ফিরে যাওয়ার পরেও ধৈর্য হারিয়ে উল্টোপাল্টা চালাননি৷ বরং ম্যাচে হারতে হবে না নিশ্চিত হওয়ার পরই খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসেন৷

ম্যাচের শেষে ঋষভ বলেন, ‘এটাই আমার জীবনের অন্যতম বড় ঘটনা৷ সিরিজের শুরুর দিকে সুযোগ পাইনি৷ কিন্তু আমি পরিশ্রম করে গিয়েছি৷ আজ সিরিজ জয়ে সেই পরিশ্রমের সুফল পেলাম৷ দলের বাকিরা সবসময় আমাকে উৎসাহ দিয়ে গিয়েছে৷’

তবে,ঋষভের এই পারফরম্যান্সের পর হয়তো ঋদ্ধিমান সাহার জন্য আপাতত ভারতীয় দলে প্রথম এগারোয় সুযোগ পাওয়ার দরজা বন্ধ হয়ে গেল৷

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?