Wednesday, March 3, 2021
Home রাজ্য পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর নন্দীগ্রাম থেকে আমি-ই দাঁড়াব:মমতা ব্যানার্জী।

নন্দীগ্রাম থেকে আমি-ই দাঁড়াব:মমতা ব্যানার্জী।

'একই সঙ্গে ভবানীপুরেও দাঁড়াবো।ওদেরকে নিরাশ করবো না'

লড়াইয়ের ময়দানে তিনি ‘বাঘিনী’,তার লড়াই ইতিহাসের পাতায় সজ্জিত।তাই লড়াইয়ের ময়দান তিনি যে এত সহজে ছাড়বেন না সেটা জানাই ছিল,কিন্তু এমন চমক বোধহয় কেউ আসা করেনি।একইসঙ্গে 2 টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটে লড়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন মমতা ব্যানার্জী।সেটাও আবার হেভিওয়েট ভবানীপুর আর নন্দীগ্রামে।একটি বাসস্থান অপরটি রাজনৈতিক জীবনের লড়াইয়ের মঞ্চ।

শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদানের পর সোমবার এই প্রথম তিনি নন্দীগ্রামের মাটিতে পা রাখলেন। তেখালির মাঠের সভা থেকে নন্দীগ্রামের মানুষের উদ্দেশে কী বার্তা দেন,সেদিকে নজর ছিল সবারই। আর সেই সভামঞ্চ থেকেই একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ‘প্রথম প্রার্থী’র নাম ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

একুশের বিধানসভা ভোটে নন্দীগ্রাম আসন থেকে লড়বেন তিনি,অর্থাৎ স্বয়ং মমতাই। দলত্যাগী শুভেন্দু অধিকারী সহ গোটা অধিকারী পরিবারকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে ঘোষণা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

একইসঙ্গে তাঁর ঘোষণা, ভবানীপুরকেও নিরাশ করবেন না। ম্যানেজ করতে পারলে, দুই কেন্দ্র থেকেই এবার বিধানসভা ভোটে লড়বেন তিনি। এদিনের সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “নন্দীগ্রাম আমার জন্য লাকি জায়গা। আজ নন্দীগ্রাম থেকেই আমি একুশের নির্বাচনের ঘোষণা করছি।

২০২১-এ তৃণমূল কংগ্রেস জিতবে। নন্দীগ্রাম থেকেই শুরু হল জেতার পালা। প্রতি সিটেই তৃণমূল জয়লাভ করবে। এখনই নাম বলছি না, নন্দীগ্রাম সিটে ভালো মানুষ দেব। যারা আপনাদের কাছে থেকে কাজ করবে।”

এরপরই সরাসরি তিনি-ই নিজে নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়াবেন বলে ঘোষণা করেন। তৃণমূল নেত্রী বলেন, “আচ্ছা, আমি-ই যদি নন্দীগ্রামে দাঁড়াই কেমন হয়? এটা আমার আবেগের জায়গা। ভবানীপুরকেও আমি নেগলেক্ট করছি না। ওটাও আমার আবেগের জায়গা। ওখানেও ভালো প্রার্থী দেব। তবে সুব্রত বক্সীকে বলব, নন্দীগ্রামে আমার নামটা চূড়ান্ত করে দিতে।”

শেষে তিনি বলেন যে, “ভবানীপুরের মানুষকেও আমি কষ্ট দেব না। ম্যানেজ করতে পারলে নন্দীগ্রাম ও ভবানীপুর, দুই জায়গা থেকেই আমি দাঁড়াব। নন্দীগ্রামে আমি দাঁড়াব-ই।”

উল্লেখ্য,বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই ক্রমাগত একের পর এক সভায় তৃণমূল নেত্রীর উদ্দেশে তোপ দেগে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। কাঁথির রোড শো থেকে ঝাড়গ্রাম ও দুই মেদিনীপুর মিলিয়ে ৩৫টি আসনেই বিজেপি জিতবে বলে হুঙ্কার দিয়েছেন। চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছেন, “গোপীবল্লভপুরের দিলীপ ঘোষ আর নন্দীগ্রামের শুভেন্দু দুজনে হাত মিলিয়েছি। লালমাটি আর জঙ্গলমহলের মাটি হাত মিলিয়েছে। যেতে তোমাকে হবেই। পদ্ম ফুটিয়ে আমি ঘুমোতে যাব। আমি আর দিলীপ ঘোষ জঙ্গলমহলে ৩৫টা আসব জেতাব।”

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?