Monday, March 1, 2021
Home রাজ্য উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা দিলীপ ঘোষের সামনেই কর্মী-সমর্থকদের হাতাহাতি,ঘটনাস্থলে পুলিশ।

দিলীপ ঘোষের সামনেই কর্মী-সমর্থকদের হাতাহাতি,ঘটনাস্থলে পুলিশ।

দলেরই কেউ যদি গন্ডগোল করে থাকে, তাহলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনওরকম বিশৃঙ্খলতা বরদাস্ত করা হবে।

নিজস্ব প্রতিনিধি:বিজেপির নয়া নির্বাচনী কার্যালয়ে উদ্বোধনে চরম বিশৃ্ঙ্খলা। দিলীপ ঘোষের সামনেই এবার হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়লেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় মোতায়েন পুলিস ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে আগামীকালের মধ্যে দলের জেলা নেতৃত্বকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিলেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি। ঘটনাস্থল, দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুর।

ঘটনার সূত্রপাত্র মঙ্গলবার সন্ধেবেলায়। সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় বিজেপি নতুন নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করে যান বিজেপির রাজ্য় সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ততক্ষণে এলাকায় ভিড় জমিয়েছেন দলের বহু কর্মী-সমর্থকরা। শেষপর্যন্ত দরজায় ফিতে কেটে দিলীপ ঘোষ যখন কার্যালয়ে ভিতরে ঢোকেন, তখনই ঘটে বিপত্তি।

বিজেপি সূ্ত্রে খবর, রাজ্য সভাপতির সঙ্গে নতুন কার্যালয়ে কে আগে ঢুকবে, তা নিয়ে দলেরই দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়ে যায়। সেই ঝামেলাই হাতাহাতি, এমনকী মারামারিতে গড়ায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিজেপি জেলা নেতৃত্ব। দুই পক্ষে  বুঝিয়ে সুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি বিশেষ। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে, যে দীর্ঘক্ষণ পার্টি অফিসের দরজায় তালা ঝুলিয়ে রাখতে হয়।শেষ পর্যন্ত ঘটনাস্থলে পুলিস গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিন সন্ধ্যাবেলা বাইরে যখন দলেরই কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ঝামেলা চলছে, তখন পার্টির অফিসের দোতলায় ছিলেন দিলীপ ঘোষ। পরে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘দলেরই কেউ যদি গন্ডগোল করে থাকে, তাহলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনওরকম বিশৃঙ্খলতা বরদাস্ত করা হবেনা। কালকের মধ্যে জেলা নেতৃত্বকে ব্যবস্থা নিতে বলেছি।’

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?