Saturday, October 16, 2021
Home রাজ্য পুরুলিয়া-বীরভূম-বাঁকুড়া জন্মদিনেই প্রচার শুরু বিকাশ রায় চৌধুরীর।

জন্মদিনেই প্রচার শুরু বিকাশ রায় চৌধুরীর।

নামা। যদিও বিকাশবাবু রাজনীতিতে আনকোরা নন। 2013 সালে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে জেলা পরিষদ থেকে ভোটে দাড়িয়ে নির্বাচিত হন এবং প্রথম বাড়ের জন্য সভাধিপতি নির্বাচিত হন।

কৌশিক সালুই, বীরভূম: জনপ্রতিনিধি হিসেবে অভিজ্ঞতা আগে থেকেই ছিল। দল এবার বিধানসভার মনোনয়ন দিয়েছে। অন্যান্য দল যেখানে প্রার্থী পদ ঘোষণা করতে পারেনি। সেখানে তিনি জনসংযোগে কয়েক কদম এগিয়ে রয়েছে বিরোধীদের থেকে। কয়েক মাস আগে থেকেই তিনি সেই কাজ শুরু করে দিয়েছেন।

বিকাশ রায় চৌধুরী। বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে সিউড়ি বিধানসভার তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী। প্রার্থী পদ ঘোষণা হওয়ার পর এদিন ছিল প্রথম রবিবাসরীয় প্রচার। সিউড়ি শহরে সকালবেলায় তিনি প্রচার করতে বেরিয়ে ছিলেন। আর প্রচারে বেরিয়ে এক অভূতপূর্ব ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইলেন বিকাশ বাবু।

স্থানীয় একটি ক্লাবের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান চলছিল। সেখানে প্রচার করতে গিয়ে তিনি দেখেন উদ্যোক্তারা তার জন্মদিন পালনের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করে রেখেছেন। কেক, মিষ্টি সহ জন্মদিন উদযাপনের অন্যান্য সামগ্রী‌ও আনা হয়েছে। উপস্থিত রয়েছে এলাকার এক গাদা খুদে শিশুরা। আর তাদের মাঝেই কেক কাটলেন তৃণমূল প্রার্থী। পাশে থাকা কচিকাচাদের নিজ হাতে তিনি কেক খাওয়ালেন কেক। শিশুরাও তাকে পাল্টা খাওয়ালেন। অনেকের আবদার মত তাদের সঙ্গে ছবি তুললেন। কেউ কেউ সেলফি তুলে রাখলেন।

জীবনের 56 টি বসন্ত পেরিয়ে গিয়েছে। রবিবার ছিল 57 তম জন্মদিন। এত বড় ভোটযুদ্ধে প্রথমবারের জন্য নামা। যদিও বিকাশবাবু রাজনীতিতে আনকোরা নন। 2013 সালে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে জেলা পরিষদ থেকে ভোটে দাড়িয়ে নির্বাচিত হন এবং প্রথম বাড়ের জন্য সভাধিপতি নির্বাচিত হন।

2018 সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করে ফের দ্বিতীয়বারের জন্য সভাধিপতির আসনে বসেন তিনি। নির্বাচন প্রাক্কালে প্রচারের চাপে তিনি নিজের জন্মদিন‌ও বেমালুম ভুলে গিয়েছিলেন। উদ্যোক্তাদের তার জন্মদিন পালনের আয়োজন তার মনে পড়ে যায় জন্মদিনের কথা। তিনি কুর্নিশ জানালেন উদ্যোক্তা থেকে শুভাকাঙ্খীদের।

জন্মদিন পালন করে আপ্লুত বিকাশ রায় চৌধুরী বলেন,” সত্যিই ভুলে গিয়েছিলাম আজকে আমার জন্মদিন ছিল। মানুষের মনের মধ্যে থাকলে এরকম ধরনের ভালোবাসা পাওয়া যায়। উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানাই। যেভাবে তারা আমার জন্মদিন পালন করেছে এবং আমাকে মনে করে দিয়েছে জন্মদিন ছিল”।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?