Sunday, February 28, 2021
Home কলকাতা কলকাতাকেও রাজধানী করা হোক,পরাক্রম দিবসে দাবি মমতার।

কলকাতাকেও রাজধানী করা হোক,পরাক্রম দিবসে দাবি মমতার।

নেতাজির ১২৫ তম জন্মদিবস পালনের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের চার প্রান্তে চারটি রাজধানী করার দাবি রাখলেন,যাতে শুরু হয়েছে তীব্র জল্পনা।

নিজস্ব প্রতিনিধি,কলকাতা:আজ নেতাজির ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী।সেই উপলক্ষে একদিকে নেমেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী আর অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।বেলা ১২.১৫ মিনিটে শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়ে নেতাজির মূর্তির সামনে সাইরেন বাজিয়ে তাঁর জন্মমুহূর্ত স্মরণ করা হলো। বাজানো হলো শঙ্খ সঙ্গে উলুধ্বনি। সেই অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে নিজেও শাঁখ বাজালেন মমতা।

শঙ্খ ও উলুধ্বনি শেষ করে শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড় থেকে পদযাত্রা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। পদযাত্রা এসে শেষ হল রেড রোডে। রেড রোডের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মমতা বলেন, ‘ভারতের একটা রাজধানী কলকাতাকে করা হোক। দেশের চার জায়গায় করা হোক রাজধানী। দেশের চার জায়গায় সংসদের অধিবেশন হওয়া উচিত।

স্বাধীনতা আন্দোলনের ভূমি বাংলা, সইবে না কোনও অবহেলা।’সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। তা নিয়ে রোজই বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ। কিন্তু এবার তা অন্য মাত্রা পেয়েছে।

নেতাজির ১২৫তম জন্মদিবস পালন উপলক্ষ্যে আজ কলকাতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর সকাল থেকেই বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে কেন্দ্রকে নিশানা করলেন তিনি।

মঞ্চ থেকে মোদিকে নিশানা করে রেড রোড থেকে মমতা বলেন, ‘নেতাজির আজাদ হিন্দ ফৌজে সর্বধর্মের মানুষ ছিলেন। দেশের হয়ে লড়ছে। ইংরেজদের ডিভাইড অ্যান্ড রুলের বিপক্ষে ছিলেন তিনি।’

সঙ্গে মমতা আরও যোগ করেন, ‘নেতাজির জন্মদিনকে জাতীয় ছুটির দিন বলে ঘোষণা করতেই হবে। আজও নেতাজির জন্মদিন জাতীয় ছুটির দিন বলে ঘোষণা হয়নি। নেতাজির প্ল্যানিং কমিশন কেন তুলে দেওয়া হল? নীতি আয়োগ তো প্ল্যানিং কমিশন রেখেও করা যেত। আমরা আজাদ হিন্দ স্মারক স্তম্ভ তৈরি করব।’ ‘কোটি কোটি টাকায় বিমান কিনছেন, নতুন সংসদ ভবন গড়ছেন। এত টাকা এই খাতে ব্যয়ের দরকার ছিল না।’

আজ নেতাজির জন্মবার্ষিকী পালনে একমঞ্চে থাকবেন মোদি-মমতা। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে ২টি গ্যালারির হবে উদ্বোধন। সেই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত আছেন মুখ্যমন্ত্রীও। তবে গেলেও লাইনে দাঁড়াবেন না, জানিয়েছেন মমতা। শনিবার সকালে নেতাজি ভবনের অনুষ্ঠানে কেন্দ্রকে নিশানা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘দয়া ভিক্ষার ওপর নির্ভর করেন না নেতাজি। ভোটের আগে একবার নয়, চিরকাল নেতাজি পরিবারের সঙ্গে ছিলাম,আছি,থাকবো।’

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?