Thursday, March 4, 2021
Home রাজ্য পুরুলিয়া-বীরভূম-বাঁকুড়া উঠতি মুখেই বাজার পড়ছে আলুর,ক্ষুব্ধ চাষীরা।

উঠতি মুখেই বাজার পড়ছে আলুর,ক্ষুব্ধ চাষীরা।

রাজনৈতিক দলগুলো কৃষক দরদী হতো তাহলে তো আজ কৃষক ভাইয়েরা আলুর ন্যায্য দাম পেতেন।

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ শীতের মাঝামাঝি সময় আসতেই চাষীদের জমি থেকে আলু তোলা শুরু হতেই আলুর দাম একেবারে কমে গিয়েছে তাই কৃষকদের মাথায় হাত জঙ্গলমহলের চাষীদের।
সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলো যে কৃষকদের নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছে তা একেবারে প্রমাণিত।

কৃষকদের স্বার্থে কৃষি আইন বাতিল করা নিয়ে দিল্লিতে যখন আন্দোলন চলছে তখন আমাদের এখানের কৃষকরা একেবারেই অসহায় পাশে কোন রাজনৈতিক দল এসে দাঁড়ায়নি।জঙ্গলমহলের কৃষকদের দাবি,” কিছুদিন আগে 50 টাকা কিলো আলু সাধারণ মানুষও চাষীদেরকে কিনে খেতে হচ্ছিল”,যখন এই আলু কোল্ড স্টোরেজ এর আন্ডারে ছিলো ও ব্যবসায়ীদের হাতে ছিল। কিন্তু এখন চাষীদের আলু তোলার সময় আলু তোলা হচ্ছে ঠিক তখনই আলুর ফসলের দাম নেই যদি সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলো কৃষক দরদী হতো তাহলে তো আজ কৃষক ভাইয়েরা আলুর ন্যায্য দাম পেতেন।

চাষিরা ন্যায্য আলুর দাম পাচ্ছে না কেন সেই উত্তর কারো জানা নেই। কৃষক ভাইয়েরা যখন আলুর বীজ কিনেছিলেন তখন পাঁচ হাজার টাকা 50 কেজি আলু বীজের বস্তার দাম পড়েছিল, এখন সেই আলুই 10 টাকা কেজি বিক্রয় করতে হচ্ছে। কারণ এই দামটা নির্ধারণ করে ব্যবসায়ীরা।

কয়েক বিঘা আলু চাষ করা এক চাষীর দাবি,”শাসক দল এই বিষয় নিয়ে কোন মিছিল আন্দোলন করছে না কেন! তা চাষী ভাইরা ও সাধারণ মানুষ জানেন না।তাই সাধারণ কৃষকরা বলছে যে আমাদেরকে নিয়ে সমস্ত রাজনৈতিক দল তাদের ভোট বাক্সের ভোট বাড়ানোর জন্য নানারকম রাজনীতি করছে আমাদেরকে নিয়ে কারো কোন ভাবনা নেই”।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?