Tuesday, September 21, 2021
Home কলকাতা আর কিছুক্ষণের মধ্যেই নামতে পারে বৃষ্টি। বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারীবৃষ্টির সম্ভাবনা।

আর কিছুক্ষণের মধ্যেই নামতে পারে বৃষ্টি। বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারীবৃষ্টির সম্ভাবনা।

যে কোনও মুহূর্তে নামতে পারে বৃষ্টি, এমনটাই জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতার আকাশে মেঘেদের ঘনঘটা। যে কোনও মুহূর্তে নামতে পারে বৃষ্টি। এমনটাই জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। শনিবার শহর মেঘাচ্ছন্ন থাকবে, এমনটাই পূর্বাভাস মিলেছে হাওয়া অফিসের তরফ থেকে। পাশাপাশি বজ্রপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। আর সেই কারণেই আগে থেকে সাবধানতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে মৌসম বিভাগের তরফ থেকে।

উল্লেখ্য, এদিন শহরের সর্বাধিক তাপমাত্রা থাকবে ৩২ ডিগ্রির কাছাকাছি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকার কথা ২৬ ডিগ্রি সেলসয়াস। আগামীকাল অর্থাৎ রবিবারও তাপমাত্রায় বিশেষ কোনও হেরফের হবে না, সে কথা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে হাওয়া অফিস। তবে যে কোনও মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে নামতে পারে প্রাক বর্ষার বৃষ্টি, সে ইঙ্গিতও দেওয়া হয়েছে আবহাওয়া দফতর এর পক্ষ থেকে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ১ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ১ ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টিপাত সেইরকম হয়নি। বাতাসে জলীয় বাষ্পের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন পরিমাণ যথাক্রমে ৭৮ এবং ৭৫ শতাংশ ছিল।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, নিম্নচাপের হাত ধরেই দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার প্রবেশ ঘটবে। আজ বৃষ্টির সঙ্গে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। হাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, কলকাতা ছাড়াও দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, দুই বর্ধমান, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, নদিয়া, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, বাঁকুড়ায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টি হতে পারে। শনিবার দুই মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূমে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রবিবার পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমানে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির সঙ্গে ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলেও জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

উত্তরবঙ্গের বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার থেকে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ১৪ তারিখ পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির জেরে নীচু এলাকায় জল জমতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?