Friday, October 22, 2021
Home রাজ্য বর্ধমান "আমি রাজনীতি কিছু বুঝি না" মন্তব্য মিঠুন চক্রবর্তীর।

“আমি রাজনীতি কিছু বুঝি না” মন্তব্য মিঠুন চক্রবর্তীর।

আমি রাজনীতির কিছু বুঝি না।মানুষনীতি করি।তাই এখানে এসেছি বলে মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা তথা অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

ডলি মল্লিক: আমি রাজনীতির কিছু বুঝি না।মানুষনীতি করি।তাই এখানে এসেছি বলে মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা তথা অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

শুক্রবার পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে নির্বাচনী সভায় উপস্থিত ছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। ভাতার বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী মহেন্দ্র কোনারের সমর্থনে এদিন ভাতারের স্কুল মাঠে সভা হয়। তিনি বলেন, ৪৪ বছর ধরে শুধু বিরোধিতা করা হয়েছে। তাই কোন উন্নতি হয়নি এই রাজ্যে।তাই আমি রাজনীতিতে এসেছি।আমি যা বলি তা করে দেখাই।আমাদের জেলায় যে হাসপাতাল আছে সেই হাসপাতালের জেনারেল বেডে এসি বসবে।

কারণ বড়লোকের বাচ্ছা হবে এসি রুমে।আর আমার গরিব বোনের বাচ্ছা জেনারেল বেডের গরমে।তা হবে না। মেয়েদের বাসে টিকিট লাগবে না। কেজি থেকে স্কুল বা কলেজে কোন পয়সা লাগবে না।মেয়েদের পড়াশোনা ফ্রি ৷ বিধবাদের মাসে তিন হাজার করে টাকা দেওয়া হবে।১৮ বছর বয়স হলে প্রত্যেক বোনের একাউন্টে ২ লক্ষ করে টাকা ঢুকবে।

এদিন কৃষাণনিধি প্রকল্প নিয়ে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করেন মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি বলেন, বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর কৃষকদের কৃষাণনিধি প্রকল্পের টাকা ঢুকবে বছরে ৬ হাজার করে টাকা।আয়ুসমান প্রকল্প নিয়েও তিনি আক্রমণ করেন রাজ্যকে।তিনি বলেন,বিজেপি সরকার এলে কোন সন্ত্রাস হবে না,দাঙা হবে না।মুসলমানদের ভাইদের বলছি একবার ভাবুন। এত বছর তো আপনাদের কোন উন্নতি হয় নি।

অন্যদিকে তিনি বলেন,রেশন নাকি বাড়িতে পৌঁছে যাবে।৬ কোটি লোককে রেশন দিতে ৬ কোটি লোক লাগবে।এত লোক কোথায়। তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, রেশনে মাল কম দিলে ফোন করবে ফাটাকেষ্ট হাজির হয়ে যাবো।১৮ বছরের স্বপ্ন। গরিবদের উন্নয়ন করবো তাই রাজনীতিতে এসেছি বলে মন্তব্য করেন মিঠুন চক্রবর্তী।

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

× How can I help you?